টাক থেকে মুক্তির ঘরোয়া উপায়

ব্যক্তি জীবনে চলতে গেলে নিজেকে সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করতে চায় না এমন পুরুষ মানুষ পৃথিবীতে নেই বললেই চলে। আর সেই রকম যদি আসলেই কেউ থেকে থাকে, সে আসলে পৃথিবীর কেউ কি না সেটা বলতে কোনো সন্দেহ নেই। আসলে সত্যি বলতে এটাই বাস্তব যে, নিজেকে কোনো স্থানে সুন্দরভাবে উপস্থাপনের চেষ্টা টা প্রত্যেকটি মানুষের ই। আপনি আমি কেউ ই এই নিয়মের বাইরে নই।

আর এই সুন্দর চাওয়াটাকে অনেক সময় অনেক মানুষ পুরন করতে পারে না। আর এই পুরন না করতে পারার মাঝে থেকে যায় কিছু সমস্যা। আর সে সকল সমস্যার মধ্য থেকে একটি বড় ধরনের সমস্যা থেকে রক্ষা পাওয়ার উপায় জানিয়ে দিবো আপনাদেরকে। আসা করি আপনাদের দেয়া টিপস আপনারা ভালোভাবে প্রয়োগ করবেন। আর আসা রাখছি যে আপনারা আপনাদের সমস্যা থেকে রক্ষাও পেয়ে যাবেন।

কথায় আসি- আজ আপনাদেরকে জানাবো কিভাবে আপনারা টাক নামক বড় ধরনের সমস্যা থেকে রক্ষা পাবেন। আসলে মাথায় টাক আসা টাকে আঞ্চলিকভাবে ভালো মনে করলেও ব্যক্তিগতভাবে যেই লোকটি এই সমস্যার সম্মুক্ষীন হয় তিনিই বুঝেন যে তাকে কতটা বিরক্তির সাথে বাচতে হয় তাকে। চাইলেও নিজেকে স্বাভাবিক ভাবে ভালো কোনো জায়গায় নিজেকে উপস্থাপন করতে পারেন না। পুরুষ হউক বা নারী উভয়েরি মাথা ভর্তি চুল মানেই অন্য রকম এক ধরনের সৌন্দর্য। আসা করি বিষয়টি আপনারা বুঝতে পেরেছেন খুব ভালো ভাবেই।

এখন বলি আপনাদের মধ্যে যদি এমন কেউ থেকে থাকেন যে তার মাথা থেকে কোনো অংশ থেকে চুল পরা শুরু হয়েছে বা কিছু অংশে চুল নেই, তাদেরকে বলছি ঘাবড়ানোর কিছুই নেই। আপনারা একদমই ভয় পাবেন না। কেননা আপনাদের মাথায় আবারও চুল ফিরিয়ে আনা সম্ভব আর সেটা অবশ্যই বড় ধরনের কোনো আর্থিক উপায়েও নয়। বরং একদমি খুব সহজ উপায়ে আপনারা পেয়ে যাবেন এর সমাধান।

আপনাদের ঘরে থাকা তরকারীরতে ব্যবহৃত পেঁয়াজ। সেটা অবশ্যই হাইব্রিড না, দেশি পেঁয়াজ হতে হবে। সেই পেঁয়াজ ভালো ভাবে বেটে নিয়ে অথবা ব্লেন্ডার দিয়ে ভালো ভাবে ব্লেন্ড করে নিতে হবে। তবে বেটে নেয়া বা ব্লেন্ড করার সময় সেখানে অবশ্যই কোন ধরনের পানি ব্যবহার করা যাবে না। একদম ফ্রেশ পেঁয়াজ পানি মুক্ত আর পেঁয়াজ থেকে যে পানি বের হবে সেটার হিসেব আলাদা। সেই পানি তো থাকবেই, হালকা রসালো সেই পেঁয়াজ ব্লেন্ডটি হাতে নিয়ে আপনার মাথার যেই অংশে চুল নেই সেই অংশে ভালো ভাবে বসিয়ে দিন।

তবে এই পেঁয়াজ বাটা মাথায় দেয়ার জন্য উপযুক্ত সময় হলো রাত্রে খাবারের পরে। যখন আপনি আর বাইরে কোনো কারনে আসবেন না। আর একটা বিষয় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ আর সেই বিষয়টি হলো পেঁয়াজ বাটা মাথায় দেয়ার পর সেখানে যেন কোনভাবে রোদের আলো না লাগে সেই দিকে খেয়াল রাখতে হবে।

এইভাবে বেশ কিছুদিন পেঁয়াজ বাটা ব্যবহার করতে থাকুন দেখবেন খালি অংশে চুল আসতে থাকবে। আর আপনি পেয়ে যাবেন আপনার টাক মাথার সমস্যা থেকে মুক্তি। আশা করি আপনারা আপনাদের সমস্যা থেকে মুক্তির এর চেয়ে সহজ এবং ভালো কোনো উপায় আর পাবেন না। ধন্যবাদ সবাইকে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *