একদম সহজ উপায়ে রান্না করুন সবজি খিচুরি।

ব্যক্তিগত জীবনে বাচতে হলে শিখতে হয় অনেক কিছুই। তার মধ্যে অন্যতম একটি কাজ হল রান্না করা শিখা। যেই কাজটি শিখে রাখলে কখনও ক্ষতি হয় কি না জানা নেই আমার তবে উপকার আছে ১০০%। তাই শুধুমাত্র উপকার করার জন্য আপনাদেরকে আজ জানাবো কিভাবে খুব সহজে তৈরি করবেন সবজি খিচুরি। আর এই সহজ এবং সুন্দর খাবার টি রান্না করা শিখতে কি কি করতে হবে আপনাদের সেই বিষয় গুলোই জানানোর চেষ্টা করবো। আসা করি আমার দেয়া সামান্য টিপস এ আপনাদের অনেকটাই উপকার হবে।

আসুন দেখে নেয়া যাক সবজি খিচুরি রান্না করার জন্য কোন কোন উপাদান গুলো থাকতে হবে। যেহেতু খাবারের নাম ই হচ্ছে সবজি খিচুরি সেহেতু অবশ্যই সেখানে সবজি লাগবে। আর সবজি রাখার ক্ষেত্রে আপনার পছন্দ আপনি খিচুরিতে কত রকমের সবজি খতে চান, ঠিক আপনার পছন্দ অনুযায়ী সবজি নিয়ে নিতে পারেন।

তবে আপনাদের শেখানোর উদ্দেশ্যে আমি আমার মত করে উপস্থাপন করার চেষ্টা করবো আসা করি আপানারা খুব সহজেই শিখতে পারবেন। প্রথমে ৪- ৫ প্রকারের সবজি নিয়ে নিন। আমি আলু, ফুলকপি, গাজর, শিম নিয়ে নিচ্ছি। আর সবজিগুলো ছোট ছোট করে কেটে নেই। আর একটি কাপে করে নির্দিষ্ট পরিমান চাল এবং মুসুরের ডাল নিয়ে নিব। তবে চালের ক্ষেত্রে আপনি নিয়মিত যেই চাল ভাত রান্নার কাজে ব্যবহার করে থাকেন সেই চাল ব্যবহার করতে পারেন।

চাল আর ডাল ভালোভাবে ধুয়ে পানি ভালোভাবে বের করে নিন। ততক্ষনে সবজিগুলোকে সিদ্ধ করে নেয়া যাক। আর এর জন্য একটি প্যানে হাফ কাপ পরিমান তেল দিয়ে তেলটা ভালোভাবে গরম করে সেইখানে সব্জিগলোকে ঢেলে দিয়ে সিদ্ধ করে নিতে হবে। তবে সবজি দেয়ার সময় মাথায় রাখতে হবে যেই সবজি গুলো সিদ্ধ হতে সময় লাগবে সেইগুলো আগে দিতে হবে। সবজি সিদ্ধ করে প্রধান খাবার অর্থাৎ খিচুরি রান্নার কার্যক্রম শুরু করতে হবে।

খিচুরি রান্না করার ক্ষেত্রে প্রথমে একটু বড় একটি পাতিল নিতে হবে। সেইখানে ২ কাপ পরিমান তেল দিতে হবে। তেল গরম হয়ে গেলে সেখানে পেয়াজ কুচি, মরিচ কুচি দিয়ে ভেজে নিতে হবে। ৩০ সেকেণ্ডের মত ভাজা হয়ে গেলে সেইখানে আদা বাটা, রসুন বাটা, হাফ চামচ হলুদের গুড়া, মরিচের গুড়া এবং গরম মসলা দিয়ে আর একটু নাড়াচাড়া করে সেখানে ধুয়ে নেয়া চাল ডাল দিয়ে ৪ মিনিটের মতো ভেজে নিতে হবে।

ভাজা হয়ে গেলে সেইখানে যতটুকু পরিমান চাল ডাল দিয়েছেন তার দবি-গুন পরিমান পানি দিতে হবে। এখন ১০ মিনিটের মতো ঢাকনা দিয়ে ঢেকে রাখুন। ১০ মিনিট পরে ঢাকনা খুলে দেখতে পারবেন পানিটা সুখিয়ে গেছে অনেকটাই। কিন্তু চালটা পুরপুরি সিদ্ধ হয়নি, আর তার জন্য চুলার তাপ একদম কমিয়ে ঢাকনা আবারও ঢেকে দিন ৪-৫ মিনিট পর ঢাকনা খুলে হাল্কাভাবে নাড়াচাড়া করুন দেখবেন আপনার পছন্দের সবজি খিচুরি রান্না হয়ে গেছে। এখন সেখানে ধনিয়া পাতার কুচি, দুটো কাচা মরিচ মাঝামাঝি কেটে খিচুরির উপর দিয়ে দিন তার সাথে গরম মসলা আধা চামচ, দিয়ে নাড়াচাড়া করে নামিয়ে নিন। পরিপূর্ণ ভাবে রান্না পর্ব শেষ, এখন বাকি কাজ আপনার।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *