অফিসের বসের প্রিয় ব্যক্তি হয়ে উঠার উপায়

প্রতিটা মানুষ ই চায় অফিসের বসের কাছে নিজেকে সেরা হিসেবে উপস্থাপন করতে। হতে চায় বসের প্রিয় পাত্র। তবে কর্ম জীবনের এই প্রিয় হতে পারা না পারার লড়াই চলতে থাকে অফিসে কর্মরত প্রতিটা কর্মীর ই। তবে সবাই হতে না পারলেও যারা বিভিন্ন কৌশল জানে তারা কৌশলে ঠিকই হয়ে ওঠে অফিসের বসের প্রিয় পাত্র। তবে কিভাবে খুব সহজে এই কাজটি করা যায় সেইটা জানানোর জন্যই এই পোস্ট। আশা করি পোস্টটি পড়ে আপনাদের কিছুটা হলেও উপকার হবে।

দুটি উপায়ে আপনি হতে পারেন আপনার অফিসের বসের কাছে তার সবচেয়ে প্রিয় ব্যক্তি। আর এই উপায় দুইটির মধ্যে একটি হলো অসদুপায়, আর একটি হলো সৎ উপায়। আমারা সবাই চাই সৎভাবে নিজেকে উপস্থাপন করার মাধ্যমে সকলের কাছে নিজেকে সেরা হিসেবে উপহার দেয়ার জন্য। আশা করি আপনিও ঠিক আমার মতোই সৎ উপায়টি জানার জন্য আকুল হয়ে আছেন।

টেনশন করার কিছুই নেই, ভালো উপায়, খারাপ উপায় দুটি-ই জানাবো আপনাদের। সততাটা আপানাদের কাছেই ছেড়ে দিবো। বেঁছে নেয়ার দায়িত্বটা আপনাদের-ই থাকবে। সত্যি বলতে কি পৃথিবীতে নিজেকে সৎ ভাবে চালিয়ে নেয়াটা সত্যি-ই খুবই কস্টকর। তাই অনেকেই এই কস্টের হাত থেকে রেহাই পাওয়ার জন্যেই বেঁছে নিয়ে থাকে অসত উপায়। আশা রাখছি আপনি সেই তালিকার কেউ নন। আপনি অবশ্যই ভালো উপায়টাই বেঁছে নিবেন।

প্রথমেই আপনাদের জানাবো কিভাবে আপনি খারাপ উপায়ে অল্প কস্টে নিজেকে আপনার অফিসের বসের কাছে প্রিয় করে তুলবেন। সকাল বেলাই অফিসে যাওয়ার পর প্রথমেই আপনার বসের সাথে দেখা করে তার বিষয়ে ভালো মন্দ জানার চেষ্টা করুন। এই ধরুন তিনি কেমন আছেন, তার পরিবারের লোকজন কেমন আছেন ইত্যাদি। এছাড়াও তার সাথে সাথে লেগে থাকুন প্রতিটা সময়। তার যখন যা কিছু প্রয়োজন সেই প্রয়োজন অনুযায়ী তাকে খুব সহজে যতটা তাড়াতাড়ি সেই বিষয়টা হাতের কাছে পৌছে দিন। তিনি কোনো কাজে ভুল করলে প্রথমেই সেই কাজের ভুল্টি ধড়িয়ে না দিয়ে তাকে সেই ভুলের জন্যই বাহবা দিন যেন তিনি খুব খুশি হয়।

যদি সেইভাবেই তিনি খুশি থাকে তাহলে এতেই যথেষ্ট। কিন্তু যদি পরবর্তীতে বস তার ভুল বুঝতে পারে তখন তার সাথে তাল মিলিয়ে আপনিও বলুন যে, বস আমিও আপনার ভুলটি প্রথমে ধরতে পেরেছিলাম কিন্তু আপনি যদি মন খারাপ করেন সেই ভয়ে আপনাকে আমি বলতে পারি নাই, যতি হউক আপনি আমার বস। এই সকল মধু মাখা কথা বলবেন দেখবেন আপনার বস আপনার প্রতি কতটা খুশি থাকে। এই খারাপ উপায়টির একটি নাম আছে সেই নামটি শুনলে আপনার মন খারাপ ও হয়ে যেতে পারে। যাই হউক উপারটা যেহেতু খারাপ তো নামটা বললে ক্ষতি কি, আর এই নামটা হলো- বসের পা চেটে নিজের সুনাম কামানো।

এখন ভালো উপায়টির দিকে আসি। কিভাবে ভালো উপায়ে আপনার অফিসের বসের কাছে হয়ে উঠবেন প্রিয় ব্যক্তি। যেহেতু উপায়টি সৎ সেহেতু এক্ষেত্রে বেশি কিছু বলার থাকে না। খুব অল্পেই সমাধান এসে যাবে। আর এই উপায়টি হলো- নিজেকে সবসময় কাজের সাথে ব্যস্ত রাখুন। সবসময় নিখুঁত ভাবে কাজ করার চেষ্টা করুন। আশেপাশের প্রতিটা মানুষ যারা কাজ করবেন তাদেরকে সঠিক উপায়ে সাহায্য করার চেষ্টা করুন। ভুল করলে সেইটা তাকে জানিয়ে সমাধান করে নিন। তিনি আপনার মতো কোনো কর্মী হউক বা আপনার বস-ই হউক না কেন। দেখবেন আপনি হয়ে উঠবেন আপনার বসের প্রিয় ব্যক্তি। মোট কথা কাজের মাধ্যমে নিজেকে সেরা বানানোটাই আসল, মিস্টি কথায় নয়।

সবাই সৎ ও নিষ্ঠার সাথে থাকবেন। সবাই ভালো থাকবেন, ধন্যবাদ সবাইকে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *